Wednesday, May 29, 2024
Homeশিক্ষামূলক গল্পহযরত ঈসা (আঃ) ও ধোপার শিক্ষণীয় গল্প

হযরত ঈসা (আঃ) ও ধোপার শিক্ষণীয় গল্প

হযরত ঈসা (আঃ) এর যুগে এক ধোপা কাপড় চুরি করতো। অতঃপর…
একদিন নবী হযরত ঈসা (আঃ) এক গ্রামে গেলেন।
গ্রামের লোকেরা ওনার কাছে অভিযোগ করলো, হে আল্লাহর নবী!

এ গ্রামে এমন এক ধোপা আছে, যে কাপড় চুরি করে ও বদলে ফেলে। তার আচরণে আমরা সবাই অতিষ্ঠ, সে আমাদের খুব কষ্ট দিচ্ছে। এখন সে কাপড় ধৌত করতে গেছে। আপনি তার জন্য বদদোয়া করুন, যেন সে ওখানেই ধংস হয়ে যায়। হযরত ঈসা (আঃ) লোকদের আবেদন গ্রহণ করলেন এবং আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করলেন, হে আল্লাহ, ওই জালিমকে হেদায়ত দান করুন, এবং তার জন্য যা উত্তম বিচার হয় তা করিও।

এদিকে সন্ধ্যায় ধোপা সহীহ সালামতে ঘরে ফিরে আসলো। লোকেরা হযরত ঈসা (আঃ) নিকট গিয়ে বললো- হযরত! আপনি কেমন বদদোয়া করলেন যে, সে তো সহীহ সালামতে ঘরে ফিরে আসলো। হযরত ঈসা (আঃ) ধোপাকে ডেকে জিজ্ঞেস করলো, আজ কি তুমি কোনো নেক আমল করেছ ? ধোপা বললো উল্লেখযোগ্য এমন কিছু করিনি, তবে একজন অসহায় ক্ষুধার্তকে আল্লাহর ওয়াস্তে দুটি রুটি দিয়েছি এবং সে খুশী হয়ে আমার জন্য দু’য়া করেছে।

সে মুহুর্তে আল্লাহ তায়ালা হযরত ঈসা (আঃ) প্রতি ওহী নাযিল করলেন, হে আমার প্রিয় নবী! ধোপার পুটলিটি খুলে দেখ। হযরত ঈসা (আঃ) ওর পুটলি খুললে সেখান থেকে একটি কালো বিষাক্ত সাপ বের হয়ে আসলো, এবং সাপটির মুখটি ছিল চিপিবন্ধ।

হযরত ঈসা (আঃ) সাপকে লক্ষ্য করে বললেন, হে ক্ষতিকর প্রাণী! আল্লাহ তায়ালা তোমাকে এ ধোপাকে দংশন করার জন্য প্রেরণ করেছিল। তুমি ওকে কেন রেহাই দিলে? সাপ আরজ করলো, হে আল্লাহর নবী! আমি ওকে দংশন করতে চেয়েছিলাম কিন্তু আল্লাহর ওয়াস্তে দানকৃত ওর দু’টি রুটির বরকতে ফিরিস্তাগণ আমার মুখে চিপি লাগিয়ে দিয়েছেন, যাতে আমি ওকে দংশন করতে না পারি। হযরত ঈসা (আঃ) ধোপাকে বললেন, হে আল্লাহর বান্দা! আল্লাহ তায়ালা তোমার বিগত জীবনের সব গুণা মাফ করে দিয়েছেন। এখন থেকে যাবতীয় গুণাহ থেকে বিরত থেকো। আল্লাহ তায়ালা তোমাকে সদকার বরকতে রক্ষা করেছেন। “সুবহানাল্লাহ”।

(সূত্র: আবু দাউদ শরীফ )

Inspire Literature
Inspire Literaturehttps://www.inspireliterature.com
Read your favourite inspire literature free forever on our blogging platform.
RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments